মঙ্গলবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৩:০১ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম :
মাহফুজুর রহমানকে ছেড়ে দ্বিতীয় বিয়ে করলেন ইভা রহমান তানোর পৌর মেয়রের বিরুদ্ধে গাছ নিধনের অভিযোগ নড়াইলে ডিবি পুলিশের অভিযানে ফেনসিডিল সহ আটক ১ আরএমপি’র সাইবার ক্রাইম ইউনিটের হাতে ভুয়া লেফটেন্যান্ট কর্ণেল আটক বরিশালে অসহায় মানুষের মাঝে চেক বিতরণ সাপাহারে দুর্গোৎসবকে সামনে রেখে প্রতিমা তৈরীর কাজ চলছে রাজপথে আন্দোলন ছাড়া দাবী আদায় হবে না : যুব জাগপা ভূমি দখলবাজ ও সন্ত্রাসীদের অত্যাচার  কুড়িগ্রামের উলিপুরে বাড়ি ভিটে দান করে দিতে চান এক পরিবার দুর্গাপূজা উপলক্ষে ৩ কোটি টাকা অনুদান দিলেন প্রধানমন্ত্রী সাংবাদিক নেতাদের ব্যাংক হিসাব তলব গণমাধ্যমে গুরুত্ব পাওয়া নিয়ে তথ্যমন্ত্রীর প্রশ্ন সাংবাদিক নেতাদের ব্যাংক হিসাব তলবের চিঠি অপ্রত্যাশিত: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী স্বাস্থ্যের গাড়িচালক মালেকের ১৫ বছর কারাদণ্ড ভোটকেন্দ্রে গোলাগুলিতে আ.লীগ নেতাসহ নিহত ২ কী অভিযোগে ব্যাংক হিসাব তলব, জানতে চান সাংবাদিকরা রাস্তা-ভবন নির্মাণে ইটের গুণগত মান নিশ্চিতের নির্দেশ

রাজদোষ – বনমানুষ

(করোনাকালীন এবং অকালীন, অতীত অথবা বর্তমান সময়ের কোন দেশ/ সরকার / জাতি’র সাথে এই লেখা মিলে গেলে লেখক দায়ী নয়।)
রাজাঃ- ওহে মন্ত্রী, প্রজাদের অবস্থা কিরুপ?
মন্ত্রীঃ- আপনি মহান। আপনার রাজত্বে কাহারো দুরবস্থা হইতে পারা সম্ভব কি??
রাজাঃ- তাহাদের শরীর-স্বাস্থ্যের কি অবস্থা?
মন্ত্রীঃ- মহারাজ দয়ার সাগর। তাহাদের স্বাস্থ্যের অবস্থা স্মরণকালের সর্বসেরা অবস্থায় বর্তমান।
রাজাঃ- আর আর্থিক?
মন্ত্রীঃ- মহারাজ দান বীর। প্রজারা অতিরিক্ত অর্থ কোন কাজে লাগাইবে তাহা নিয়াই চিন্তিত।
রাজাঃ- কিন্তু, আমিতো শুনিলাম প্রজারা নাকি দারিদ্রতায় বসবাস করিতেছে?
মন্ত্রীঃ- মহারাজের রসিকতা হৃদয়ঙ্গম। কোথা হইতে এই রকম সংবাদ আপনার কর্ণকুহরে আসিল!!?
রাজাঃ- সংবাদটি বায়ুযোগে পাইয়াছি।
মন্ত্রীঃ- নিশ্চই এই বায়ু আপনার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রকারীদের দ্বারা প্রবাহিত।
রাজাঃ- তাহা হইলে তুমি কহিতেছ সব উত্তম।
মন্ত্রীঃ- অতি উত্তম, অতি উত্তম।
দেশ দরদী রাজা বিশ্বস্ত মন্ত্রীর কথায় আশ্বস্ত হইয়া নিদ্রামগ্ন হইল। ঠিক তখন প্রজারা ক্ষুধার জ্বালায় নিদ্রা হইতে শতক্রোশ দূরে পড়িয়া রইল।
মহারাজ সিংহাসনে বসিল। সভা আরম্ভ হইয়াছে।
রাজাঃ- ওহে উত্তর প্রদেশের শাখা-মন্ত্রী, আমাকে প্রদেশ সম্পর্কে অবহিত কর।
শাখা-মন্ত্রীঃ- মহারাজের দয়া, উত্তর প্রদেশ উন্নয়নের চরম শিখর হইতে কিঞ্চিৎ নিম্নে আছে। প্রদেশে প্রাত্যহিক উৎসবমুখর পরিবেশ বিরাজমান। আপনার প্রদত্ত ত্রান সামগ্রীর বদৌলতে প্রজাদের জীবনধারণের জন্য বিশেষ কিছু করিতে হয়না।
রাজাঃ- উত্তর প্রদেশ অতিউষ্ম আবহাওয়ার ব্যাপারে আমি জ্ঞাত। প্রজারা কষ্ট পাইতেছেনাতো?
শাখা-মন্ত্রীঃ- মহারাজ জ্ঞানের সাগর, কিঞ্চিৎ উষ্ম বটে, তবে আপনি যে অনুদান সম্প্রদান করিয়াছেন, উহার বদৌলতে প্রজারা উষ্ম আবহাওয়ার কথা প্রায় ভুলিতে বসিয়াছে।
রাজাঃ- রাজকোষ হইতে কতিপয় প্রজাদের গৃহ নির্মানের আদেশ দিয়াছিলাম, তাহা কতদূর।
শাখা-মন্ত্রীঃ- মহারাজের স্মৃতি ক্ষুরধার। বাতুলতা মার্জনীয়, তবে পাশ্ববর্তী রাজ্যের কতিপয় নাগরিক ভ্রমণে আসিয়া ঐসব গৃহ দর্শন করিয়া তাহাদের রাজপ্রাসাদের সহিত তুলনা করিয়াছে।
রাজাঃ- কি কহিতেছ!! অবিশ্বাস্য।
শাখা-মন্ত্রীঃ- মহারাজের বিশ্বাস আমার নিঃশ্বাস স্বরুপ। আমার সহিত কতিপয় নাগরিক আসিয়াছে। আপনি ইচ্ছা পোষণ করিলে উহাদের শুধাইতে পারেন।
রাজাঃ- উহাদের তলব কর।
(দরবারে ৩/৪ জন লোক আসিয়া মহারাজের প্রশংসা করিয়া উত্তর প্রদেশের উন্নয়ন সম্পর্কে জানাইয়া গেল।)
রাজাঃ- তাহা হইলে তুমি কহিতেছ উত্তর প্রদেশের অবস্থা উত্তম?
শাখা-মন্ত্রীঃ- অতি উত্তম, অতি উত্তম।
সভার মধ্য বিরতী। দেশ দরদী রাজা প্রশান্ত মনে শ’খানেক ব্যাঞ্জন দিয়া মধ্যাহ্নভোজ শুরু করিল। তখন উত্তর প্রদেশের অধিকাংশ ঘরে ক্ষুদার্থ সন্তানকে শান্ত করিতে মা তাহাদের কথা বলিতে পারা ঘোড়ার গল্প শুনাইতেছিল।
মহারাজ মধ্যাহ্নভোজ শেষ করিয়া আধশোয়া হইয়া রাণীর সাথে খোশগল্প করিতেছে;
রাজাঃ- রাণী, আমার অন্তর আজ অতিশয় তৃপ্ত। আমার রাজ্যে উন্নয়নের জোয়ারে বান ডাকিয়াছে।
রাণীঃ- মহারাজ এর উপর শান্তি বর্ষিত হোক। আপনার মত দেশ দরদী রাজা থাকিতে উন্নয়ন না হওয়ার কোন যৌক্তিক কারণ আছে বলিয়া মনে হয়না।
রাজাঃ- আজ উত্তর প্রদেশের কতিপয় প্রজা আসিয়াছিল, উহাদের বর্ণনা অতিশয় শ্রুতিমধুর।
রাণীঃ- মহারাজের জয়।
রাজাঃ- শিক্ষা খাতে অবর্ননীয় উন্নয়ন, শিক্ষার্থীরা নাকি দূরদেশে বিদ্যার্জনে যাইতে আগ্রহী নহে। রাজ্যের উন্নত শিক্ষাব্যবস্থায়ই তারা সন্তুষ্ট।
রাণীঃ- মহারাজের জয়।
রাজাঃ- গৃহায়ণ বিভাগও ভালো কাজ করিতেছে। শুনিয়াছি প্রজাদের জন্য তৈরীকৃত গৃহ বড়ই দৃষ্টিনন্দন।
রাণীঃ- মহারাজের জয়।
রাজাঃ- প্রতি কথার উত্তরে কি হেতু তুমি জয় জয় করিতেছ?
রাণীঃ- মহারাজ, আমি অন্দরের বাসিন্দা। আমি নিজ চক্ষে কিছুই দর্শন করিনাই। আপনার মুখে শুনিয়া জয় ব্যতীত আর কি ই বা কহিতে পারি।
রাজাঃ- দর্শনতো আমিও করিনাই। উত্তর প্রদেশের শাখা মন্ত্রী আসিয়াছিলো। সে ই কহিয়াছে। তা ছাড়া কয়েকজন প্রজাও আসিয়াছে।
রানীঃ- মহারাজ,বেয়াদবি মার্জনা করিবেন। যে প্রজারা আসিয়াছে, তাহারা কিন্তু মন্ত্রীর সহিত আসিয়াছে। এমনওতো হইতে পারে, তাহারা মন্ত্রীর সাজানো প্রজা।
রাজাঃ- (চিন্তিত হইয়া) তাহা তুমি একদম ভুল কহনাই। আমার মনে হয়, একবার স্বচক্ষে দেখিয়া আসা উচিত।
রাণীঃ- মহারাজ,বেয়াদবি মার্জনা করিবেন। উত্তর প্রদেশের খোঁজ লওয়ার আগে শহরের আশ পাশের খোঁজ লওয়া উচিৎ নহে কি?
রাজাঃ- শহরের খোঁজ কি লইব? তাহাতো আমি স্বচক্ষেই দেখিতেছি।
রাণীঃ- মহারাজ, প্রাসাদের আশ পাশেতো সব রাজকর্মচারীরা বসবাস করে, একটু দূরে গিয়া দেখা উত্তম নহে কি?
রাজাঃ- উত্তম, অতি উত্তম।
(চলবে..)

Please Share This Post in Your Social Media

https://twitter.com/WDeshersangbad

https://www.facebook.com/Dsangbad

https://www.facebook.com/Dsangbad

All rights reserved © deshersangbad.com 2011-2021
Design And Developed By Freelancer Zone